Thursday, February 02, 2012

সমসাময়িক নিষ্ঠা


শুভ নববর্ষের আতশবাজির আলো
উচ্ছলিত জীবনের প্রথম রাতে
ছড়িয়ে পড়লো তোমাতে
যেন বিচ্ছুরিত অগ্নিস্রোতের নব অভ্যুদয়,
সঙ্গী ছিলো আকাঙ্ক্ষিত সুপেয় হৃদয়,
তাই ছিলো না কোনো সাদা কালো ভয়
তিনকালের অহিঙসাবাদি প্রেমবাদি এ-পৃথিবীর
তোমার আমার মতো নর ও নারীর;
তবুও তো জাগতিক সঙসারের গর্তে পড়ে
হুড়মুড় ভেঙে পড়ে কোনোটা বা খুব নড়ে
এ পাড়ার ও পাড়ার সুপ্রীতিদের ঘরে ঘরে
পরস্পর ভালোলাগা হৃদয়গুলোর
এককালের জমে থাকা নিষ্ঠতার দৌড়;
সে যায় তারা আসে ঘণ্টাক্রমে ভালোবাসে,
সাঁতারুরা গোসল শেষে গা মোছে পথপার্শ্বে
জীবন কাপড় ফেলে জাবনেরই উল্টোপাশে,
ছেঁড়া জীবন জোড়া দেয়, হাত বদলে পাল্টে নেয়
নিত্যদিন ঘর কিনে সাথীটিকে পাল্টে আনে
দূরের বা কাছের বাজার বা ফুটপাতের
কোলাহলময় কোনো দোকান থেকে;
জীবন আকঁবে আবার জীবনেরই ছকে

তুমি আমি একদিন হারালাম চুপিসারে
আধমরা ব্যাঙ যেমন লুকায় শরীর
বিষাক্ত সাপের ডরে প্রেমের অভ্যন্তরে;
সকলেই ডুব দিলাম দূর্ভাবনার তোড়ে 

আর তোমার বন্ধুরা এবং তাদের বান্ধবিরা 

রঙধনুর রোদ কিনতে
বেরোলো আঁধার রাতে অজানার পথে
ভিনদেশি যুবকের কড়া প্রহরাতে_  
সুসময় আনবে বলে হৃদয়ের মর্মখুলে;
আজ এই অসময়ে কোনখানে তারা
বলতে পারো কেউ?

No comments:

Post a Comment