Saturday, February 11, 2012

বাঁচবার প্রয়োজন



আমি সময়কে গড়াতে গড়াতে নিয়ে চলি 
তেলের গোলাকার খালি ড্রামের মতো,
সকালের অভুক্ত পথে ভবিষ্যত খুঁজতে গিয়ে
টের পাই নদপত্র আছে বেশকটি তিক্ত অভিজ্ঞতার,
স্নাতকোত্তর শেষ হয়েছে বছর খানেক আগে;
তোমার সাথে দেখা হয় মাঝে মধ্যে
হল গেটে, ক্যাম্পাসে, টিউশনি ফিরতি পথে_
প্রথম আলাপের দিন
স্মৃতিপাথরে
খোদাই করে
রেখেছি অমলিন,
মনে আছে তোমার চোখের পাতায় ছিলো অবিরাম উচ্ছলতার ঢেউ,
আর আজ মুখখানা হয়ে গেছে যেন বাঙলার পাঁচ

হবে না বা কেন?
প্রতিদনই যারা ঘুরতো দুজন একসাথে
নবজাতকের আগমনে তারা হয়ে যায় তিনজন;
আমার নেই কোনো বৈষয়িক সুপরিবর্তন;
তোমার নাগরিক বান্ধবিরা
মফস্বলি ভুতদের একদম পছন্দ করে না,
আড়ালে আবডালে আমাকে তারা ডাকে মভু বলে;
আমি জানি আমি শালা ভুতের অধিক ভুত
আধখানা নির্ভেজাল গেঁয়ো ফকির
আধখানা বাস্তুহীন শিকড়হীন
গোত্র জন্মহীন পথের পাশে পড়ে থাকা ছেঁড়া স্যান্ডেল,
মানিব্যাগে আজীবন বহন করেছি ছারপোকা,
গোপনে বলে রাখি
যদিও হৃদয়ে ছিলো একরাশ গোলপাতার কল্পস্বর্ণঘর-
সে ঘরে না এসেই

তোমার তর্জনি শুধু দেখিয়েছে প্রতিদিন
বেঁচে থাকতে বড়সড় কত কী প্রয়োজন!

No comments:

Post a Comment