Thursday, April 12, 2012

গামার গাছ বাংলাদেশ ও ক্রান্তীয় অঞ্চলের বৃক্ষ




গামার গাছ
বৈজ্ঞানিক নাম: Gmelina arborea
সমনামঃ
বাংলা নামঃ গামার, গামারি, গাম্বার।
ইংরেজি নাম: Chandahar Tree, Cashmere Tree, Comb Teak, White Teak.
আদিবাসি নামঃ গাম্ভার, বল-কোবাক(গারো), রামানি (মগ), রেমেনিবা (মারমা), গামারি গাছ (তঞ্চঙ্গা), আব্বেই(খুমি)। গামারি-ফঙ(মান্দি)।

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যঃ Plantae - Plants
উপরাজ্যঃ Tracheobionta - Vascular plants
অধিবিভাগঃ Spermatophyta - Seed plants
বিভাগঃ Magnoliophyta - Flowering plants
শ্রেণীঃ Magnoliopsida - Dicotyledons
উপশ্রেণিঃ Asteridae  
বর্গ: Lamiales
পরিবারঃ Verbenaceae - Verbena family.
উপপরিবারঃ
গণঃ Gmelina L. – gmelina.
প্রজাতিঃ Gmelina arborea Roxb. – gumhar.
পরিচিতিঃ মাঝারি আকারের পত্রহরিৎ বৃক্ষ। ২০-২৫ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। পাতা বিপরীত। ওভেট, একোমিনেট। ৬-১০টি শাখা শিরাযুক্ত। পানের মতো আকৃতির পাতলা। পত্রবোঁটা ২-১২ সেমি লম্বা। বাকল সাদা বা উজ্জ্বল-ধূসর। ফুল ছোট, বাদামি হলুদ। আড়াই সেন্টিমিটার লম্বা। ফল ড্রোপ। প্রায় আড়াই সেমি ব্যাসের হয়ে থাকে। ফলে এক থেকে দুটি বীজ। দেশের সর্বত্রই এদের দেখা যায়। তবে চট্টগ্রাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও সিলেট, ময়মনসিংহ বনাঞ্চলে বেশি দেখা যায়।
ব্যবহারঃ কচি পাতার রস গনোরিয়া ও কফের ওষুধ। ফুল শ্বেতি ও রক্তের রোগে ব্যবহৃত হয়। 
বিবিধঃ Gmeline গণে ৭টি প্রজাতি রয়েছে।


আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা 

৪. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

No comments:

Post a Comment

জনপ্রিয় দশটি লেখা, গত সাত দিনের

Recommended