Saturday, April 21, 2012

বড় মদনটাক বাংলাদেশে বিলুপ্ত এবং পৃথিবীর মহাবিপন্ন পাখি


Photo: Yathin Krishnappa


দ্বিপদ নাম: Leptoptilos dubius (Gmelin, 1789)
সমনাম: Ardea dubia, Gmelinm, 1789 
বাংলা নাম: বড় মদনটাক,
ইংরেজি নাম/Common Name: Greater Adjutant.

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যঃ Animalia
বিভাগঃ Chordata
শ্রেণীঃ Aves
পরিবার/ Family: Ciconiidae
গণ/Genus: Leptoptilos, Lesson, 1831;
প্রজাতি/Species: Leptoptilos dubius (Gmelin, 1789)

ভূমিকা: বাংলাদেশের পাখির তালিকাLeptoptilos গণে বাংলাদেশে রয়েছে এর ২টি প্রজাতি এবং পৃথিবীতে ৩টি প্রজাতি। বাংলাদেশে প্রাপ্ত প্রজাতি দুটি হচ্ছে, . বড় মদনটাক এবং ২. ছোট মদনটাকআমাদের আলোচ্য প্রজাতিটির নাম হচ্ছে বড় মদনটাক। এছাড়াও আফ্রিকায় প্রাপ্ত অন্য মদনটাকটির নাম হচ্ছে মারাবৌ মদনটাক।
বর্ণনা: বড় মদনটাক ঝোলানো গলথলি ও টাক মাথাওয়ালা বিশাল জলচর পাখি। দৈর্ঘ্য ১৩০ সেমি, ডানা ৮১ সেমি, ঠোঁট ৩৩.২ সেমি,পা ৩২ সেমি, লেজ ৩২.২ সেমি। প্রাপ্তবয়স্ক পাখির মাথা ও ঘাড়ে পালক থাকে না, ঘাড়ের তলায় সাদা গলাবন্ধ; মাথার পালকহীন চামড়া লালচে-বাদামি।
স্বভাব: বড় মদনটাক হ্রদ, বহমান নদী, জলাধার, নরদমা, খাল, প্যারাবন, খোলা বন ও বাদাজমিতে বিচরণ করে; সচরসচর ছোট ছোট দলে থাকে। চিল, মানিকজোড় ও শকুনের মিশ্র দলে আকাশে উড়ে আহার খোঁজে এবং পানির ধারে আস্তে আস্তে হেঁটে খাবার খায়; খাদ্যতালিকায় রয়েছে মাংস ও পশুর মৃত দেহ, মাছ, ব্যাঙ, সাপ, টিকটিকি ও কাঁকড়া। মাটি থেকে উড়ে উঠার আগে লম্বা দৌড় দেয় এবং গাছগাছালির ওপর ২-৩টি চক্র দিয়ে আকাশে উঠে। সেপ্টেম্বর-জানুয়ারিমাসে প্রজননকালে ভারতের আসাম রাজ্যের বড় গাছের মগডালে ভূমি থেকে ১২-৩০ মিটার উচুতে ডালপালা দিয়ে ১-২ মিটার ব্যাসের বড়বাসা বানিয়ে এরা ডিম পাড়ে। ডিমগুলো সাদা, সংখ্যায় ৩-৪ টি, মাপ ৭.×.৮ সেমি।
বিস্তৃতি: বড় মদনটাক বাংলাদেশে আবাসিক এবং বাংলাদেশের বিলুপ্ত পাখিউনিশ শতকে ঢাকা বিভাগে ছিল । পাকিস্তান, ভারত, নেপাল, থাইল্যাণ্ড ও কম্বোডিয়ায় এর বৈশ্বিক বিস্তৃতি ছিল। বর্তমানে ভারতের আসামও বিহারে এবং কম্বোডিয়ায় মাত্র ৫০০ বা তার কম পাখি টিকে আছে।
অবস্থা: ২০০৯ সালে এশিয়াটিক সোসাইটি কর্তৃক প্রকাশিত বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষে এটিকে বাংলাদেশে অনিয়মিত পাখি হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।
বিবিধ: দ্য হিন্দু পত্রিকার খবর অনুসারে আসামের কামরূপ জেলার দাদারিয়া এবং পাছারিয়া নামের দুটি গ্রামে বড় মদনটাকের কলোনি হচ্ছে ২০০৮-২০১২ সাল পর্যন্ত। এই গ্রাম দুটিতে প্রচারণা ও কার্যক্রম জোরদার করার ফলে সেখানে বড় মদনটাকের সংখ্যা বাড়ছে।

No comments:

Post a Comment