Monday, September 02, 2013

মেটে রাজহাঁস বাংলাদেশের বিরল পরিযায়ী পাখি





মেটে রাজহাঁস, ফটো; ইংরেজি উইকিপিডিয়া থেকে
দ্বিপদ নাম: Anser anser
সমনাম: Anas anser Linnaeus, 1758
বাংলা নাম: মেটে রাজহাঁস, ধূসর রাজহাঁস (অ্যাক্ট)
ইংরেজি নাম: Greylag Goose

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যKingdom: Animalia
বিভাগ/Phylum: Chordata
শ্রেণী/Class: Aves
পরিবার/Family: Anatidae
গণ/Genus: Anser, Brisson, 1760;
প্রজাতি/Species: Anser anser (Linnaeus, 1758)
ভূমিকাঃ বাংলাদেশের পাখির তালিকাAnser গণে ৩টি প্রজাতি রয়েছে এবং পৃথিবীতে রয়েছে ১০টি প্রজাতি রয়েছে। বাংলাদেশের প্রজাতি তিনটি হচ্ছে ১. বড় ধলাকপাল রাজহাঁস, ২. মেটে রাজহাঁস, ৩. দাগি রাজহাঁসআমাদের আলোচ্য পাখিটি হচ্ছে বড় মেটে রাজহাঁস
বর্ণনা: মেটে রাজহাঁস পাটলবর্ণের ঠোঁট ও পা এবং লম্বা গলার বড় জলচর পাখি (দৈর্ঘ্য ৮২ সেমি, ওজন ৩ কেজি, ডানা ৪৫ সেমি, ঠোঁট ৬.২ সেমি, পা ৭ সেমি, লেজ ১৩.৫ সেমি)প্রাপ্তবয়স্ক পাখির মাথা ও গলা হালকা ছাই রঙের; কালচে কোমর ও উপরের লেজ-ঢাকনি সাদা; দেহতল ধূসর বাদামি; তলপেট সাদা; ওড়ার সময় ডানার ফ্যাকাসে সম্মুখভাগ স্পষ্ট চোখে পড়েএর চোখ বাদামি; ঠোঁট লালচে সাদা থেকে পাটল বর্ণের, ঠোঁটের আগা হালকা খয়েরি ও সাদায় মেশানো; পা ও পায়ের পাতা প্রায় পাটল বর্ণেরপুরুষ ও স্ত্রীপাখির চেহারায় পার্থক্য নেইঅপ্রাপ্তবয়স্ক পাখির হালকা খয়েরি পিঠ ও পেটের পালকের বেড় অস্পষ্টএই প্রজাতির ২টি উপ-প্রজাতির মধ্যে A. a. rubrirostris বাংলাদেশে দেখা গেছে
স্বভাব: মেটে রাজহাঁস নদ-নদী, হ্রদ, নিচু জলাবদ্ধ জমি, আর্দ্র তৃণভূমি ও সদ্যকাটা শস্যখেতে বিচরণ করে; সাধারণত দলবদ্ধভাবে থাকতে দেখা যায়অগভীর জলে হেঁটে, সাঁতার কেটে বা পানির নিচে ঠোঁট ডুবিয়ে খাবার খোঁজে; খাদ্যতালিকায় আছে ঘাস, জলজ আগাছা, শস্যের কচি ডগা, শামুক, গুগলি ইত্যাদি এরা প্রধানত দিনের বেলা বিচরণ করে, আবার পূর্ণিমা রাতেও সক্রিয় থাকে; অন্য সময় এক পায়ে দাঁড়িয়ে বা মাটিতে বুক লাগিয়ে বিশ্রাম নেয়এদের গভীর নাকি সুরের পরিচিত ডাক: অ্যাবঙ-অ্যাবঙ....এপ্রিল মাসে এশিয়া ও সাইবেরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলের জলাশয়ে এরা প্রজনন শুরু করে এবং নলবনে ও ঝোপের মধ্যে বাসা বেঁধে ডিম পাড়েডিমগুলো পীতাভ ও সাদায় মেশানো; সংখ্যায় ৮-৬টি; মাপ ৮.৫দ্ধ ৫.৮ সেমিস্ত্রীপাখি একাই ডিমে তা দেয়; ২৭-২৮ দিনে ডিম ফোটে; ছানাগুলো বাসা ছেড়ে স্ত্রীপাখির পিছু পিছু মাটিতে ও পানিতে চরে বেড়ায়; শীতের পরিযায়নেও তারা একে অনুসরণ করে
বিস্তৃতি: মেটে রাজহাঁস বাংলাদেশের বিরল পরিযায়ী পাখি; প্রধানত শীতে বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের সমুদ্র-উপকূলে বিচরণ করে; তা ছাড়া ঢাকা ও সিলেট বিভাগের বড় জলাশয়গুলোতেও পাওয়া যায়এশিয়া ও ইউরোপ মহাদেশে এর বৈশ্বিক বিস্তৃতি রয়েছে
অবস্থা: মেটে রাজহাঁস বিশ্বে বিপদমুক্ত বলে বিবেচিতবাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতি সংরক্ষিত
বিবিধ: মেটে রাজহাঁসের বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ রাজহাঁস (ল্যাটিন : anser = রাজহাঁস)

বাংলাদেশের উদ্ভিদ প্রাণী জ্ঞানকোষে এই নিবন্ধটির লেখক মো: আনোয়ারুল ইসলাম ও মো: শাহরিয়ার মাহমুদ।


আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা 

. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

৩. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

৪. বাংলাদেশের ফলবৈচিত্র্যের একটি বিস্তারিত পাঠ

No comments:

Post a Comment