Monday, September 02, 2013

পাতি শরালি বাংলাদেশের সুলভ আবাসিক পাখি


পাতি সরালি, ফটো: KironKhan, কুষ্টিয়া, বাংলাদেশ
দ্বিপদ নাম: Dendrocygna javanica
সমনাম: Anser javanica Horsfield, 1821
বাংলা নাম: পাতি শরালি, শরালি (আলী)
ইংরেজি নাম: Lesser Whistling Duck

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যKingdom: Animalia
বিভাগ/Phylum: Chordata
শ্রেণী/Class: Aves
পরিবার/Family: Dendrocygnidae
গণ/Genus: Dendrocygna, Swainson, 1837;
প্রজাতি/Species: Dendrocygna javanica (Horsfield, 1821)
ভূমিকাঃ বাংলাদেশের পাখির তালিকাDendrocygna গণে ২টি প্রজাতি রয়েছে এবং পৃথিবীতে রয়েছে ৮টি প্রজাতি রয়েছে। বাংলাদেশের প্রজাতি দুটি হচ্ছে রাজ শরালি পাতি শরালি। আমাদের আলোচ্য পাখিটি হচ্ছে রাজ শরালি
বর্ণনা: পাতি শরালি কালচে-বাদামি রঙের লম্বা ঘাড়ওয়ালা হাঁস (দৈর্ঘ্য ৪২ সেমি, ওজন ৫০০ গ্রাম, ডানা ১৮.৭ সেমি, ঠোঁট ৪ সেমি, পা ৪.৫ সেমি, লেজ ৫.৫ সেমি)প্রাপ্তবয়স্ক পাখির ধূসরাভ ও পীত রঙের মাথায় গাঢ় বাদামি টুপি; ঘাড়ের উপরিভাগ ধূসর পীতাভ; ওড়ার পালক কালচে; ডানার আগা, কোমর, লেজ-ঢাকনি উজ্জ্বল তামাটে; বগল হালকা হলুদ; পিঠে আঁইশের মত দাগ; হালকা হলুদ তলপেটসহ দেহতল তামাটেএর চোখ মলিন বাদামি, ঠোঁট স্লেট-ধূসর ও চোখের পাতা উজ্জ্বল হলুদ; পা ও পায়ের পাতা ফ্যাকাসে-নীল; আঙুলের পর্দা ও নখর কালচে পুরুষ ও স্ত্রীপাখির চেহারা অভিন্নঅনুজ্জ্বল অপ্রাপ্তবয়স্ক পাখির দেহতল ধূসরাভ-পীতাভ
স্বভাব: পাতি শরালি মিঠাপানির পুকুর, বিল, ঝিল, নদীতীর ইত্যাদি অগভীর জলাশয়ে বিচরণ করে; সাধারণত ঝাঁকে থাকতে দেখা যায়রাতে জলমগ্ন জমিতে অল্প ডুব দিয়ে, সাঁতরে বা হেঁটে এরা আহার খোঁজে; খাদ্যতালিকায় আছে জলজ আগাছা, কচিকা-, শস্যদানা, মরা মাছ, পোকামাকড় ও জলজ অমেরুদন্ডী প্রাণীদিনে এরা পানিতে, মাটিতে অথবা গাছে বিশ্রাম নেয় অথবা ঘুমায়ওড়ার সময় এদের ডানার বিশেষ পালক থেকে নূপুরের মত ঝন্-ঝন্ শব্দ হয়; তা ছাড়া সাধারণত শিস দিয়ে ডাকে: হুই-হুয়ি..জুন-অক্টোবর মাসের প্রজনন ঋতুতে গাছের গর্তে, তাল ও নারকেল গাছের মাথায়, নলবনে ও জলবেষ্টিত ঝোপে লতাপাতা ও ঘাস স্তূপ করে বাসা বেঁধে এরা ডিম পাড়েডিমগুলো সাদা, সংখ্যায় ৭-১২ টি, মাপ ৪.৭-২.৬ সেমি স্ত্রীপাখি একা ডিমে তা দেয়; ২২-২৪ দিনে ডিম ফোটেপুরুষ ও স্ত্রীপাখি উভয়ে মিলে ছানা পাহারা দেয়
বিস্তৃতি: পাতি শরালি বাংলাদেশের সুলভ আবাসিক পাখি; শীতে অনেক পরিযায়ী পাতি শরালি এ দেশে আসে; দেশের সব বিভাগের সব জলাশয়ে এদের দেখা যায় পৃথিবীতে এর বিস্তৃতি দক্ষিণ, পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় পাকিস্তান, ভারত, নেপাল, শ্রীলংকা, চিন, তাইওয়ান, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, ইন্দোচিন, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া
অবস্থা: পাতি শরালি বিশ্বে ও বাংলাদেশে বিপদমুক্ত বলে বিবেচিতবাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতি সংরক্ষিত
বিবিধ: পাতি শরালির বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ জাভা দ্বীপের বৃক্ষবাসী-হাঁস (গ্রিক : dendron = বৃক্ষ, cygnus = হাঁস, javanica = জাভা দ্বীপের, ইন্দোনেশিয়া)


ছবির ইতিহাসঃ  ছবিটি ভারতের পঞ্চগড় থেকে তুলেছেন  Kiron Khan, কুষ্টিয়া, বাংলাদেশ ২৯ জানুয়ারি, বাইক্কা বিল থেকে তোলা।

বাংলাদেশের উদ্ভিদ প্রাণী জ্ঞানকোষে এই নিবন্ধটির লেখক মো: আনোয়ারুল ইসলাম ও মো: শাহরিয়ার মাহমুদ।


আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা 

. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

৩. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

৪. বাংলাদেশের ফলবৈচিত্র্যের একটি বিস্তারিত পাঠ

No comments:

Post a Comment