Saturday, December 21, 2013

বড় হলদেকুড়ালি বাংলাদেশের সুলভ আবাসিক পাখি



বড় হলদেকুড়ালি, ফটো: ইংরেজি উইকিপিডিয়া থেকে
দ্বিপদ নাম: Picus flavinucha
সমনাম: নেই
বাংলা নাম: বড় হলদেকুড়ালি
ইংরেজি নাম: Greater Yellownape.

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যKingdom: Animalia
বিভাগ/Phylum: Chordata
শ্রেণী/Class: Aves
পরিবার/Family: Picidae
গণ/Genus: Picus, Linnaeus, 1758;
প্রজাতি/Species: Picus flavinucha Gould, 1834
ভূমিকাঃ বাংলাদেশের পাখির তালিকাPicus গণে বাংলাদেশে রয়েছে এর ৫টি প্রজাতি এবং পৃথিবীতে ১৫টি প্রজাতি। বাংলাদেশে প্রাপ্ত প্রজাতি চারটি হচ্ছে, ১. মেটেমাথা কাঠকুড়ালি,. ছোট হলদেকুড়ালি, ৩. বড় হলদেকুড়ালি  . দাগিবুক কাঠকুড়ালি ও ৫. দাগিগলা কাঠকুড়ালি। আমাদের আলোচ্য প্রজাতিটির নাম হচ্ছে বড় হলদেকুড়ালি
বর্ণনা: বড় হলদেকুড়ালি সুদর্শন ঘাড়-ঝুটি পড়া কাঠঠোকরা (দৈর্ঘ্য ৩৩ সেমি, ওজন ১৮৫ গ্রাম,ডানা ১৭ সেমি, ঠোঁট ৪.২ সেমি, পা ৩ সেমি, লেজ ১২ সেমি)প্রাপ্তবয়স্ক পাখির পিঠ হলদে সবুজ ও দেহতল জলপাই-ধূসর; মাথা ও ঘাড়ের পিছনে সোনালী-হলুদ ঝুটি, ডানার মধ্য-পালকে প্রশস্ত লাল ও কালো ডোরা; লেজ কালো; এবং ঘাড়ের পিছনে বাদামিঠোঁট হলদে-ধূসর, গোড়া কালচে ও আগা গজদন্তের মত; চোখ বাদামি-গাঢ় লাল; পা ও পায়ের পাতা ধূসর-সবুজ বা ফ্যাকাসে এবং নখর ফ্যাকাসেছেলে মেয়েপাখির চেহারায় পার্থক্য থুতনি ও গলার রঙয়ে, ছেলেপাখির ক্ষেত্রে যা হলুদ আর মেয়েপাখির ক্ষেত্রে লাল-বাদামিছেলেপাখি মেয়েপাখির চেয়ে ওজনে কিছুটা বেশি অপ্রাপ্তবয়স্ক পাখির ঘাড় ফ্যাকাসে, পীতাভ বা সাদা গলায় কালো চিতি এবং বেশ ধূসর পেট৭টি উপ-প্রজাতির মধ্যে P. f. flavinucha বাংলাদেশে পাওয়া যায়
স্বভাব: বড় হলদেকুড়ালি প্রশস্ত পাতার চিরসবুজ ও পাতাঝরা বন, পর্বতের পাদদেশের বন, প্যারাবন ও চা বাগানে বিচরণ করে; জোড়ায় বা ছোট পারিবারিক দলে থাকে; মাঝে মাঝে পেঙ্গা ও ফিঙের সহযোগী হয়ে শিকার করেগাছের বাকল থেকেই এরা খাদ্য সংগ্রহ করে; খাদ্যতালিকায় রয়েছে পিঁপড়া, গাছ ছিদ্রকারী পোকা, উইপোকা, ফুল ও ফলের রসজোড়ার পাখির সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য এরা করুণ চীৎকারের মত ডাকে: পী-উ.. , বা কিউ.., বা চ্যাঙ্ক...মার্চ-মে মাসের প্রজনন ঋতুতে সার বনে ছেলেপাখি মেয়েপাখির পশ্চাদ্বাবন করে, ঠোঁট ওপরমুখি করে ও শরীর কাঁপায়বনের বড় গাছের কাণ্ডে অথবা ওপরমুখি শাখায় গর্ত বানিয়ে বাসা করে ডিম পাড়েডিমগুলো সাদা, সংখ্যায় ৩-৪টি, মাপ ২.৮×২.২ সেমি
বিস্তৃতি: বড় হলদেকুড়ালি বাংলাদেশের সুলভ আবাসিক পাখি; চট্টগ্রাম, খুলনা ও সিলেট বিভাগের চিরসবুজ ও প্যারাবনে পাওয়া যায়ভারত, নেপাল, ভুটান, চীন ও ইন্দোনেশিয়াসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এর বৈশ্বিক বিস্তৃতি রয়েছে
অবস্থা: বড় হলদেকুড়ালি বিশ্বে ও বাংলাদেশে বিপদমুক্ত বলে বিবেচিতবাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতি সংরক্ষিত
বিবিধ: বড় হলদেকুড়ালির বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ সোনাঘাড় কাঠঠোকরা (গ্রীক : pikos = কাঠঠোকরা, ল্যাটিন: flavus = সোনালী, nucha = ঘাড়)
বাংলাদেশ উদ্ভিদ প্রাণী জ্ঞানকোষে এই নিবন্ধটির লেখক ইনাম আল হক ও এম. কামরুজ্জামান


আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা  

. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

৩. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

৪. বাংলাদেশের ফলবৈচিত্র্যের একটি বিস্তারিত পাঠ

No comments:

Post a Comment