Thursday, December 05, 2013

দেশি মেটেহাঁস বাংলাদেশের দুর্লভ আবাসিক পাখি



দেশি মেটেহাঁস, ফটো: ইংরেজি উইকিপিডিয়া থেকে
দ্বিপদ নাম: Anas poecilorhyncha
সমনাম: নেই
বাংলা নাম: দেশি মেটেহাঁস, পাতি হাঁস (আই)
ইংরেজি নাম: Indian Spot-billed Duck, (Spot-billed Duck)  

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যKingdom: Animalia
বিভাগ/Phylum: Chordata
শ্রেণী/Class: Aves
পরিবার/Family: Anatidae
গণ/Genus: Anas, Linnaeus, 1758;
প্রজাতি/Species: Anas poecilorhyncha Forster, 1781
ভূমিকাঃ বাংলাদেশের পাখির তালিকা Anas গণে বাংলাদেশে রয়েছে ১০টি প্রজাতি এবং পৃথিবীতে ৪২টি প্রজাতি রয়েছে। বাংলাদেশর নিম্নোক্ত ১০টি প্রজাতি হচ্ছে ১. উত্তুরে ল্যাঞ্জাহাঁস, ২. উত্তুরে খুন্তেহাঁস, ৩. পাতি তিলিহাঁস, ৪. ফুলুরি হাঁস, ৫. বৈকাল তিলিহাঁস, ৬. ইউরেশীয় সিঁথিহাঁস, ৭. নীলমাথা হাঁস, ৮. দেশি মেটেহাঁস, ৯. গিরিয়া হাঁস ও ১০. পিয়াং হাঁস। আমাদের আলোচ্চ হাঁসটির নাম দেশি মেটেহাঁস
বর্ণনা: দেশি মেটেহাঁস দুইরঙ্গা ঠোঁটের বড় আকারের হাঁস (দৈর্ঘ্য ৬১ সেমি, ওজন ১.৪ কেজি, ডানা ২৬.৫ সেমি, ঠোঁট ৫.৭ সেমি, পা ৪.৭ সেমি, লেজ ১৩ সেমি)ছেলে মেয়েহাঁসের চেহারায় বিশেষ পার্থক্য নেইবাদামি পালকের প্রান্ত হালকা রঙের বলে দেখতে এদের দেহে আঁইশের মত দাগ আছে; বুকে কালো ফুটকি; মাথার চাঁদি বাদামি; চোখ ঘন বাদামি; প্রশস্ত কালো ভ্রু-রেখা ঠোঁট থেকে শুরু হয়ে চোখের ওপর দিয়ে চলে গেছে; চোখের সামনে ঠোঁটের দুদিকে দুটি লালচে দাগ রয়েছে; ঠোঁটের দুই-তৃতীয়াংশ কালো ও বাকি এক-তৃতীয়াংশ হলুদ; পা ও পায়ের পাতা প্রবাল-লাল ও নখর কালোঅপ্রাপ্তবয়স্ক হাঁস হালকা বাদামি ও এর কপালে লাল দাগ নেই২টি উপ-প্রজাতির মধ্যে A. p. poecilorhyncha বাংলাদেশে পাওয়া যায়
স্বভাব: দেশি মেটেহাঁস হ্রদ, সেচের জলাধার, নদীর পাড় এবং নলবন ও আগাছাভরা মিঠাপানির জলাভূমিতে বিচরণ করে; সাধারণত পারিবারিক দলে বা ছোট ঝাঁকে দেখা যায়অগভীর পানিতে সাঁতার কেটে বা পানিতে মাথা ডুবিয়ে আহার খোঁজে; খাদ্যতালিকায় রয়েছে লতাপাতা ও অমেরুদণ্ডী প্রাণীবিপদে পানিতে ডুব দিয়ে এরা লুকিয়ে যায়, এবং কেবল মাত্র চোখ পানির ওপর রেখে ডুবে থাকতে পারে জুলাই-অক্টোবর মাসের প্রজনন ঋতুতে ছেলেহাঁসেরা ভাঙা ভাঙা কণ্ঠে নিচু স্বরে ডাকে, মেয়েহাঁসেরা জোরে গ্যাক গ্যাক করে ডাকে; এবং পানির কাছে মাটিতে লতাপাতায় ঘাস, আগাছা ও পালকের বাসা করে ডিম পাড়েডিমগুলো সবুজে ও সাদায় মেশানো, সংখ্যা ৭-৯টি; মাপ ৫.৬ × ৪.২ সেমিস্ত্রী একাই ডিমে তা দেয়; ২৪ দিনে ডিম ফোটে; ছেলে মেয়েহাঁসেরা উভয় মিলে ছানা পাহারা দেয়
বিস্তৃতি: দেশি মেটেহাঁস বাংলাদেশের দুর্লভ আবাসিক পাখি; দেশের সব বিভাগের সব ধরনের জলাভূমিতে পাওয়া যায়পৃথিবীতে এই প্রজাতির বিস্তৃতি কেবল এশিয়ায় সীমাবদ্ধ; বিশেষ করে সাইবেরিয়া, চীন, জাপান ও মিয়ানমার; এবং মালদ্বীপ ছাড়া ভারত উপমহাদেশের সব দেশে আছে
অবস্থা: দেশি মেটেহাঁস বিশ্বে ও বাংলাদেশে বিপদমুক্ত বলে বিবেচিতবাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতি সংরক্ষিত
বিবিধ: দেশি মেটেহাঁসের বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ দাগিঠোঁট হাঁস (ল্যাটিন: Anus = হাঁস; গ্রীক: poikilos = দাগ, rhunkhos = ঠোঁট)

No comments:

Post a Comment

জনপ্রিয় দশটি লেখা, গত সাত দিনের

Recommended