Friday, December 13, 2013

হলদেপা নাটাবটের বাংলাদেশের বিরল আবাসিক পাখি



হলদেপা নাটাবটের, ফটো: ইংরেজি উইকিপিডিয়া থেকে
দ্বিপদ নাম: Turnix tanki
সমনাম: নেই
বাংলা নাম: হলদেপা নাটাবটের, বটের (আলী)
ইংরেজি নাম: Yellow-legged Buttonquail (Buttonquail)

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যKingdom: Animalia
বিভাগ/Phylum: Chordata
শ্রেণী/Class: Aves
পরিবার/Family: Turnicidae
গণ/Genus: Turnix, Bonnaterre, 1791;
প্রজাতি/Species: Turnix tanki Blyth, 1843
ভূমিকাঃ বাংলাদেশের পাখির তালিকাTurnix বা নাটাবটের গণে রয়েছে বাংলাদেশে রয়েছে এর ৩টি প্রজাতি এবং পৃথিবীতে ১৫টি প্রজাতি। বাংলাদেশের প্রজাতি তিনটি হচ্ছে; ১. দাগি নাটাবটের,. ছোট নাটাবটের ও ৩. হলদেপা নাটাবটের। আমাদের আলোচ্য প্রজাতিটির নাম হচ্ছে হলদেপা নাটাবটের
বর্ণনা: হলদেপা নাটাবটের খুদে গোলগাল দেহের হলুদ পা ও হলুদ ঠোঁটওয়ালা ভূচর পাখি (দৈর্ঘ্য ১৫ সেমি, ওজন ৪০ গ্রাম, ডানা ৮ সেমি, ঠোঁট ১.৪ সেমি, পা ২.৪ সেমি, লেজ ৩ সেমি)প্রজনন ঋতুতে ছেলেপাখির পিঠ বাদামি-ধূসর ও দেহতল পীতাভমাথার চাঁদি পীতাভ ডোরাসহ কালচেথুতুনি ও গলা সাদাটেপীতাভ ডানার কোর্ভাট, পাছা, স্ক্যাপুলার, পিঠ, বুকের পাশ ও বগলে স্পষ্ট কালো চিতি রয়েছেপ্রজননক্ষম মেয়েপাখির ঘাড় লাল এক রঙাগলা, ঘাড়ের পাশ ও বুক লাল-কমলাঅপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েপাখির মাথার চাঁদিতে পীতাভ ডোরা, লাল-ধূসর ঘাড়, ধূসরাভ পাছা এবং কালো ও লাল স্ক্যাপুলারছেলেমেয়েপাখি উভয়ের চোখ সাদা এবং ঠোঁট, পা, পায়ের পাতা ও নখর হলুদ২টি উপ-প্রজাতি T. t. tankiT. t. blanfordi উভয়ই বাংলাদেশে পাওয়া যেতে পারে
স্বভাব: হলদেপা নাটাবটের ক্ষুদ্র ঝোপ ও জঙ্গলসহ তৃণভূমি, বনপ্রান্ত, বাগান ও খামারে বিচরণ করে; সাধারত জোড়ায় থাকতে দেখা যায়ধীরে সুস্থে ও সাবধানে হেঁটে ও মাটিতে ঠোকর দিয়ে এবং ঝোপের নিচে ঝরাপাতা উল্টে খাবার খায়; খাদ্যতালিকায় রয়েছে বীজ, শস্যদানা, কচিকাণ্ড, পোকামাকড়, পিঁপড়া ও উইপোকামাঝে মাঝে এরা জোর গলায় ডাকে: হু-ওন.. ; প্রজননকালে দিনরাত ডাকে মার্চ-নভেম্বর মাসে প্রজনন ঋতুঘাসবনে অথবা ক্ষুদ্র ঝোপের নিচে মাটিতে এরা ঘাস দিয়ে গম্বুজ আকৃতির বাসা বানিয়ে ডিম পাড়েডিমগুলো ধূসরাভ সাদার ধ্যে ছোট ছোট হলদে-বাদামি ছিটা-দাগ; সংখ্যায় ৪টি; মাপ ২.২ × ২.০ সে.মি ছেলেপাখি একাই ডিমে তা দেয় ও ছানা লালন করে ১২ দিনে ডিম ফোটে; ১৪-১৬ দিনে ছানার গায়ে ওড়ার পালক গজায়
বিস্তৃতি: হলদেপা নাটাবটের বাংলাদেশের বিরল আবাসিক পাখি; সম্প্রতি ঢাকা ও সিলেট বিভাগে দেখা গেছে; ১৯ শতকে চট্টগ্রাম বিভাগে ছিলভারত, পাকিস্তান, নেপাল, ভুটান, চিন, মিয়ানমার , থাইল্যান্ড এবং কোরিয়াসহ দক্ষিণ ও পূর্ব এশিয়ায় এর বৈশ্বিক বিস্তৃতি রয়েছে
অবস্থা: হলদেপা নাটাবটের বিশ্বে বিপদমুক্ত এবং বাংলাদেশে অপ্রতুল-তথ্য শ্রেণিতে রয়েছেবাংলাদেশ বন্যপ্রাণী আইনে একে সংরক্ষিত ঘোষণা করা হয়নি
বিবিধ: হলদেপা নাটাবটের পাখির বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ টংকি-তিতির (ল্যাটিন:coturnix = তিতির, tanki = টংকি, লেপ্চা ভাষায় কাপাশি পাখি
বাংলাদেশ উদ্ভিদ প্রাণী জ্ঞানকোষে এই নিবন্ধটির লেখক এম আনোয়ারুল ইসলাম ও সুপ্রিয় চাকমা

আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা 

. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

৩. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

৪. বাংলাদেশের ফলবৈচিত্র্যের একটি বিস্তারিত পাঠ

No comments:

Post a Comment