Wednesday, March 12, 2014

কলজেবুটি কাঠকুড়ালি বাংলাদেশের অনিয়মিত পাখি



কলজেবুটি কাঠকুড়ালি, ফটো: Khao Yai, Thailand, উইকিপিডিয়া থেকে
দ্বিপদ নাম: Hemicircus canente (Lesson, 1830)
সমনাম: Picus canente Lesson, 1830
বাংলা নাম: কলজেবুটি কাঠকুড়ালি
ইংরেজি নাম: Heart-spotted Woodpecker.

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্যKingdom: Animalia
বিভাগ/Phylum: Chordata
শ্রেণী/Class: Aves
পরিবার/Family: Picidae
গণ/Genus: Hemicircus, Swainson, 1837;
প্রজাতি/Species: Hemicircus canente (Lesson, 1830)
ভূমিকাঃ বাংলাদেশের পাখির তালিকাHemicircus গণে বাংলাদেশে রয়েছে এর ১টি প্রজাতি এবং পৃথিবীতে ২টি প্রজাতি। বাংলাদেশে প্রাপ্ত ও আমাদের আলোচ্য প্রজাতিটির নাম হচ্ছে কলজেবুটি কাঠকুড়ালি
বর্ণনা: কলজেবুটি কাঠকুড়ালি বড় কালো টুপি পড়া কাঠঠোকরা (দৈর্ঘ্য ১৬ সেমি, ওজন ৩৬ গ্রাম, ডানা ৯.৭ সেমি, ঠোঁট ২.৩ সেমি, পা ২ সেমি, লেজ ৩.২ সেমি) প্রাপ্তবয়স্ক পাখির পিঠ কালো ও পীতাভ এবং দেহতল কালচে জলপাই ও কালোয় মেশানো; ডানার গোড়ার-পালক সাদা; ডানা-ঢাকনি ও পিঠ-ঢাকনিতে ছোট ছোট পাতা আকারের কালো ছোপ রয়েছে; থুতনি, গলা ও ঘাড়ের পাশ পীতাভ-সাদাএর ঠোঁট ঘন শিং-বাদামি, মুখ তামাটে-পাটল বর্ণের ও চোখ জলপাই-বাদামি; পা, পায়ের পাতা ও নখর কালচে-স্লেট রঙের বা বাদামি-কালোছেলে মেয়েপাখির চেহারার পার্থক্য তাদের কপালের বর্ণে: ছেলেপাখির কপাল কালো ও মেয়েপাখির সাদা অপ্রাপ্তবয়স্ক পাখির কপালের ও চাঁদির কালো ফুটকি এবং পালকের প্রান্তদেশের সাদাটে অংশ ছাড়া দেখতে মেয়েপাখির মত
স্বভাব: কলজেবুটি কাঠকুড়ালি চিরসবুজ ও আর্দ্র পাতাঝরা বন, অপ্রধান বন ও বাঁশজঙ্গলে বিচরণ করে; সাধারণত একা বা জোড়ায় দেখা যায়সরু ডালের প্রান্তদেশ বা উঁচু গাছের পাতা ঢাকা ডালে খাবার খায়; খাদ্যতালিকায় রয়েছে পিঁপড়া, উই ও অন্যান্য পোকামাকড়ডালের চারদিকে ঘুরে অবিরাম মৃদু আঘাত করে এরা ফাটলে লুকিয়ে থাকা পোকা বের করে খায়; খাওয়া ও ওড়ার সময় দুটি তীক্ষ্ণ শব্দে বার বার ডাকে: ক্লিক - ক্লিক...; এবং দীর্ঘ, তীব্র ও মনোহর সুরে ডাকে: টুই-টুই-টিটিটিটিটিটি... নভেম্বর-এপ্রিল মাসের প্রজনন ঋতুতে গাছের মৃত কাণ্ডে ১৫-২০ সেমি. দীর্ঘ গর্ত খুঁড়ে বাসা বানিয়ে ডিম পাড়েডিমগুলো সাদা; সংখ্যায় ২-৩টি ; মাপ ২.৪×১.৮ সেমি
বিস্তৃতি: কলজেবুটি কাঠকুড়ালি বাংলাদেশের অনিয়মিত পাখি; কালে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগে দেখা গেছে বলে দুটি তথ্য আছেমিয়ানমার, থাইল্যান্ড ও ইন্দোচীনসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এর বৈশ্বিক বিস্তৃতি রয়েছে
অবস্থা: কলজেবুটি কাঠকুড়ালি বিশ্বে বিপদমুক্ত এবং বাংলাদেশে অপ্রতুল-তথ্য শ্রেণিতে রয়েছেবাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতি সংরক্ষিত
বিবিধ: কলজেবুটি কাঠকুড়ালির বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ মেটে অর্ধ-লেজি (গ্রীক: hemi = অর্ধ, kerkos = লেজ; ল্যাটিন : canenti = ধূসর)
বাংলাদেশ উদ্ভিদ প্রাণী জ্ঞানকোষে এই নিবন্ধটির লেখক ইনাম আল হক ও এম. কামরুজ্জামান। 



আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা  

. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

৩. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

৪. বাংলাদেশের ফলবৈচিত্র্যের একটি বিস্তারিত পাঠ

No comments:

Post a Comment