Tuesday, August 12, 2014

শন বাংলাদেশ ভারতের পাটজাতীয় ঔষধি গাছ



শন পাট, ফটো: ইংরেজি উইকিপিডিয়া থেকে
বৈজ্ঞানিক নাম: Crotalaria juncea
সমনাম: Crotalaria benghalensis
বাংলা নাম: শন, শন পাট  
ইংরেজি নাম: sunn or sunn hemp

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants
অবিন্যসিত: Angiosperms
অবিন্যসিত: Eudicots
অবিন্যসিত: Rosids
পরিবার: Fabaceae
ট্রাইব: Crotalarieae
গণ: Crotalaria
প্রজাতি: Crotalaria juncea.
পরিচিতি: শন  গাছের আঁশ থেকে উৎকৃষ্ট মানের দড়ি তৈরি হয় এবং ভাল সবুজ সার হয়। এর "নাইট্রোজেন ফিক্সিং এবিলিটি" ধঞ্চে গাছের মতো, যে কারণে কৃষকদের খুব প্রিয়। একটু বেড়ে উঠলে অনেক সময় মোয়িং করে দেয়া হয়। আর ক্ষেত শেষ হয়ে গাছ মরে গেলে ন্যাচারাল ফিক্সিং হতে থাকে।

ব্যবহার: এটা আমাদের উপমহাদেশের গাছ, প্রাচীন কাল থেকে এর বেশ কিছু ভেষজ ব্যবহার আছে যার সবকিছু উল্লেখ করাও কঠিন কাজ। তবে কয়েকটি ব্যবহার খুব সাধারণ যেমন, বিয়ে বাড়িতে প্রচুর খাবার পর হাঁসফাঁস অবস্থা খাদকের। তখন বমনের জন্যে কিছু বীজ পাটায় বেটে পানি দিয়ে খেয়ে ফেললে অবধারিত বমি হবে, এবং একটু পরেই। এটা উৎকৃষ্ট বমন কারক, কিন্তু ঘরে এর বীজ থাকা চাই।
অনেক সময় সারা গায়ে যেখানে সেখানে ফোড়া ওঠে। এটা হয় মূলত রক্তদুষ্টির জন্যে। তখন এর বীজের ক্বাথ খেতে দেয়া হয়। বিজ বেটে পানিতে ফুটিয়ে অর্ধেক করে সকালে খেতে হয় খালি পেটে।
ছুলি রোগ সহজে যায় না কিন্তু এর বীজ বেঁটে পেস্ট করে দুচারদিন লাগালেই চামড়ার রঙ স্বাভাবিক হয়ে যায়। মেয়েদের জন্যে শ্বেতপ্রদর এবং রজঃরোগে এর ব্যবহার আছে, সঙ্গে গর্ভপাতেরও। এর ফুল দিয়েও কিছু চিকিৎসা হয়, যা আমার অজ্ঞাত। 
বি. দ্র: উদ্ভিদের ঔষধ নিজ দায়িত্বে ব্যবহার করুন।
লেখার উৎস: ফেসবুক গ্রুপ বৃক্ষকথার জায়েদ ফরিদ-এর লেখা থেকে

আরো পড়ুন:

. বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের একটি বিস্তারিত পাঠ

. বাংলাদেশের পাখির তালিকা 

৪. বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

No comments:

Post a Comment